কমেছে ডিমের দাম

53

খুচরা বাজারে এক মাস আগেও ডিমের হালি ছিল ৫০ টাকা। তবে মাসের ব্যবধানে ডিমের দামে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে। খুচরা বিক্রি হচ্ছে ৩৬ টাকা হালি।

বাজার সূত্রে জানা গেছে, সপ্তাহ ব্যবধানে হিলিতে কমেছে ডিমের দাম। নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতিতে ডিমের দামে স্বস্তি ফিরেছে ক্রেতাদের মাঝে। বর্তমানে প্রতি হালি ডিম ৩২-৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডিমের দাম কমায় খুশি ক্রেতারা।

জানা যায়, দিনাজপুরের হিলিতে বর্তমানে প্রতি ডজন ডিমের দাম ১২-১৬ টাকা কমেছে। গত সপ্তাহে প্রতি হালি ডিম ৪০-৪২ টাকা দরে বিক্রি হলেও এখন তা কমে ৩২-৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে ডিমের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। দাম কমায় ডিমের চাহিদা দ্বিগুণ হয়েছে। খামারগুলো থেকে ডিম নিয়ে পাইকারি ও খুচরা বাজারে ডিমের সরবরাহ করা হচ্ছে।

মুদি দোকানদার আব্দুল করিম বলেন, বাজারে অন্যান্য পণ্যের দামও এখন কমতে শুরু করেছে। তার সাথে সাথে কমেছে ডিমের দাম। প্রতি পিস ডিমের দাম এক থেকে দেড় টাকা কমেছে। তবে ডিমের দাম আরো কমার আশঙ্কা রয়েছে।

ডিম ক্রেতা আসিফ বলেন, গত সপ্তাহেও ডিমের দাম বেশি ছিল। এখন ডিমের দাম কমেছে। দাম বেশি থাকায় ডিম কিনতে পারিনি। এখন দাম হাতের নাগালে আসায় ডিম কিনছি।

হিলির ডিম উৎপাদনকারী নয়ন পোল্ট্রি ফার্মের মালিক বলেন, বাজারে ডিমের দাম কমায় ক্রেতারা স্বস্তিতে থাকলেও খামারিরা লোকসানে রয়েছে। পোল্ট্রি খাদ্যের অনেক দাম। সেই অনুযায়ী ডিমের দাম কম। একটি ডিম উৎপাদনে আমাদের প্রায় ১১ টাাক খরচ হচ্ছে।

আর ডিম বিক্রি করতে হচ্ছে ৮ টাকায়। অনেক খামারি লোকসানের কারণে খামার বন্ধ করে দিয়েছে। এভাবে চলতে থাকলে কিছুদিন পর আমার খামারও বন্ধ করে দিতে হবে।

ফার্মসএন্ডফার্মার/ ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২