কোরবানি করার সঠিক সময়

49

পবিত্র ঈদুল আজহা প্রায় আসন্ন। এ দিন মহান আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে কোরবানি দিবেন মুসলমানরা। তবে কোরবানি দেবার কিছু নিয়ম আছে। চাইলেই যে কোনো পশু বা যে কোনো বয়সের পশু কোরবানি দেয়া যায় না।

জিলহজ মাসের দশম দিন ঈদের নামাজ পড়ার পর থেকে জিলহজের বারো তারিখ সূর্যাস্তের পূর্ব পর্যন্ত কোরবানি করা যাবে। তবে ঈদের নামাজের পূর্বে কোরবানি করা যাবে না। ঈদের নামাজ পড়ে এসে কোরবানি করতে হবে।

যদি শহরের একাধিক স্থানে ঈদের নামাজ হয় তাহলে যে কোনো এক স্থানে নামাজ আদায় হয়ে গেলে সব স্থানেই কোরবানি করা জায়েজ হবে।

কোরবানি দাতা সে নিজেও জবেহ করতে পারবে এবং কোনো আলেম তথা অভিজ্ঞ কাউকে দিয়ে কোরবানি করাতে পারবে। তবে উত্তম হচ্ছে নিজের কোরবানি নিজে করা।

মুখ দিয়ে উচ্চারণ করে নিয়ত করা জরুরি নয় বরং অন্তরের নিয়তই যথেষ্ট। জবেহ করার সময় অবশ্য আল্লাহর নাম নিতে হবে।

সূত্র: সময় টিভি

ফার্মসএন্ডফার্মার/২৯জুলাই২০