গরুকে অতিরিক্ত খাওয়ানোর ফলে যেসব সমস্যা হতে পারে

67

আমাদের দেশে বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে ব্যাপকহারে গাভী পালন করা হয়ে থাকে। গাভী পালনে দুধের উৎপাদন বৃদ্ধি করার জন্য অনেকেই অতিরিক্ত খাদ্য দিয়ে থাকেন। এতে নানা জটিলতার দেখা দিতে পারে। আজ আমরা জানবো গরুকে অতিরিক্ত খাদ্য খাওয়ালে যেসব সমস্যা হতে পারে সেই সম্পর্কে-

গাভীকে অতিরিক্ত খাদ্য খাওয়ালে যেসব সমস্যা হতে পারেঃ
অতিরিক্ত খাদ্য খেলে গাভীর বিপাক-ক্রিয়া বা হজম প্রক্রিয়ায় ব্যঘাত ঘটতে পারে। এতে করে গাভীর বদহজম,পাকস্থলীতে গ্যাস এসব নানান সমস্যা দেখা দেয়।

তাছাড়া অতিরিক্ত খাদ্য হজম করতে অতিরিক্ত শক্তি বা ক্যালরি খরচ করতে হয় গাভীকে। এর ফল স্বরূপ, রোগ প্রতিরোধ,দৈহিক বৃদ্ধি,দুধ উৎপাদন,প্রজনন স্বাস্থ্যের রক্ষণাবেক্ষণ এসব প্রক্রিয়াতে যতটুকু শক্তির দরকার পড়ে তার ঘাটতি দেখা দেয়। ফলে গাভীর দুধ উৎপাদন কমে যায়। তাই, গাভীকে সবসময় পরিমিত এবং নির্দিষ্ট পরিমাণে সুষম দানাদার খাদ্যের মিশ্রণ, কাঁচা ঘাস এবং পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি সরবরাহ করতে হবে।

গাভীর খাদ্যের পরিমাণঃ

পালন করা প্রতিটি গাভীকে তার প্রথম তিন কেজি দুধ উৎপাদনের জন্য তিন কেজি দানাদার খাদ্য এবং পরবর্তী প্রতি তিন কেজি দুধ উৎপাদনের জন্য এক কেজি দানাদার খাদ্য এভাবে হিসাব করে খাদ্য প্রদান করতে হবে।

এছাড়াও প্রতিটি গাভীকে কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ কেজি কাঁচা ঘাস দিতে হবে। আর গাভীকে দৈনিক তার দেহের আকৃতি বিচার করে ৫০ থেকে ১০০ লিটার পর্যন্ত পানি পানের জন্য ব্যবস্থা রাখতে হবে।

ফার্মসএন্ডফার্মার/২মার্চ২০২১