ছাগলের রোগ প্রতিরোধের জন্য খামারে যা করা জরুরী

111

ছাগলের রোগ প্রতিরোধের জন্য খামারে যা করা জরুরী তা আমরা অনেকেই জানি না। ছাগল পালনের অন্যতম প্রতিবন্ধকতা হল ছাগলের মারাত্মক সব রোগ। তবে কিছু নিয়ম অনুসরণ করলে ছাগলকে মারাত্মক সব রোগের হাত থেকে রক্ষা করা যায়। আসুন তাহলে জেনে নেই ছাগলের রোগ প্রতিরোধের জন্য খামারে যা করা জরুরী সেই সম্পর্কে-

ছাগলের রোগ প্রতিরোধের জন্য খামারে যা করা জরুরীঃ
বিভিন্ন কারণে ছাগল রোগ আক্রান্ত হতে পারে। সেজন্য আগে থেকেই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে-

ছাগলের রোগের লক্ষণঃ

ছাগল রোগে আক্রান্ত হলেনিম্নলিখিত সাধারণ লক্ষণসমূহ দেখা যায়-

১। শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়।

২। চামড়ার লোম খাড়া দেখায়।

৩। খাদ্য গ্রহণ ও জাবরকাটা বন্ধ হয়ে যায়।

৪। ঝিমাতে থাকে ও মাটিতে শুয়ে পড়ে।

৫। চোখের পানি ও মুখ দিয়ে লালা নির্গতহয়।

ছাগল ভাইরাস রোগে আক্রান্ত হলে এদের মৃত্যু হতে পারে। ভাইরাস রোগের আক্রান্ত পশুর চিকিৎসা করে সুফল পাওয়া যায় না। ব্যাকটেরিয়া দ্বারা আক্রান্ত রোগেও ছাগলের মৃত্যু হয়ে থাকে। তবে এ ক্ষেত্রে চিকিৎসা করে অনেক ক্ষেত্রেই সুস্থ করে তোলা যায়।

ছাগলের রোগ প্রতিরোধের করণীয়ঃ

১। ছাগলের ঘর ও এর চারপাশ পরিচ্ছন্নরাখা।

২। ছাগলকে সময়মতো টিকা দেয়াও কৃমিনাশকঔষধ খাওয়ানো।

৩। ছাগলকে তাজা খাদ্য খেতে দেয়া।

৪। ছাগলকে সুষম খাদ্য ও পানি সরবরাহকরা।

৫। ছাগলের ঘরের মেঝে শুষ্ক রাখার ব্যবস্থাকরা।

৬। ছাগলের বিষ্ঠা খামার থেকে দূরে সংরক্ষণ করা।

ছাগলের খামারে রোগ দেখা দিলে চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে-

১। অসুস্থ ছাগলকে আলাদা করে পর্যবেক্ষণকরা ও চিকিৎসা দেওয়া।

২। প্রয়োজনে ছাগলের মলমূত্র পরীক্ষারব্যবস্থা করা।

৩। মৃত ছাগলকে মাটির নিচে চাপা দেওয়া।

ফার্মসএন্ডফার্মার/১৩মে২০