ছাদের টবে ডালিম চাষ করবেন যেভাবে

26

শহরে ছাদ কৃষির জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে ।প্রিয় পাঠক,এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ আমরা আলোচনা করবো ছাদে টবে ডালিম চাষ পদ্ধতি নিয়ে।সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং শেয়ার করে দিন অন্য ছাদ বাগান প্রেমী বন্ধুদের কাছে।
ডালিম অতি পরিচিত একটি পুষ্টিকর ফল। রক্তবর্ধক হিসেবে ডালিমের জুড়ি মেলা ভার।এরই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আলোচনা করব ছাদে টবে ডালিম চাষ নিয়ে।

টব বাছাইঃ
২০ ইঞ্চি কালার বা রং করা ড্রাম অথবা টব জোগাড় করতে হবে। ড্রামের তলায় ৩-৫ টি ছিদ্র করে নিতে হবে, যাতে গাছের গোড়ায় পানি জমে থাকতে না পারে। টব বা ড্রামের তলার ছিদ্রগুলো ইটের ছোট ছোট টুকরা দিয়ে বন্ধ করে দিতে হবে ।

সার প্রয়োগঃ
বেলে দোআঁশ মাটি ২ ভাগ, গোবর ১ ভাগ, টিএসপি ৪০-৫০ গ্রাম, পটাশ ৪০-৫০ গ্রাম এবং ২০০ গ্রাম হাড়ের গুড়া একত্রে মিশিয়ে ড্রাম বা টবে পানি দিয়ে ১০-১২ দিন রেখে দিতে হবে। তারপর মাটি কিছুটা খুচিয়ে আলগা করে দিয়ে আবার ৪-৫ দিন আগের মতো একইভাবে রেখে দিতে হবে। মাটি যখন ঝুরঝুরে হবে তখন একটি সবল সুস্থ কলমের চারা সেই টবে রোপণ করতে হবে।

পরিচর্যাঃ
চারা গাছটিকে সোজা করে সঠিকভাবে রোপণ করতে হবে।চারা রোপণের শুরুর দিকে পানি অল্প দিলেই চলবে। পরে ধীরে ধীরে পানি দেওয়া বাড়াতে হবে। তবে গাছের গোড়ায় পানি জমতেও দেওয়া যাবে না।পচা খৈলের পানি পাতলা করে গাছের গোড়ায় দিতে হবে।নিয়মিতভাবে আগাছা পরিষ্কার করতে হবে।

রোগবালাই ও কীট দমনঃ
ফলছিদ্রকারী পোকা-প্রতি লিটার পানিতে এক মিলিলিটার হারে ম্যালাথিয়ন বা কার্বারিল ( এসিকার্ব ) বা ফস্‌ফামিডন গ্রুপের কীটনাশক ১২- ১৫ দিন পর পর গাছে ও ফলে স্প্রে করতে হবে।

কাণ্ড ছিদ্রকারী পোকা-কেরোসিন বা পেট্রোল ঢুকিয়ে কাদা দিয়ে গর্ত বন্ধ করে দিলে পোকা মারা যাবে।
ফল ফেটে যাওয়া-বোরিক এসিড প্রতি গাছে ৪০ গ্রাম হারে মাটিতে প্রয়োগ করতে হবে।

ফার্মসএন্ডফার্মার/১৭অক্টোবর২০