ডিমপাড়া মুরগির ডিম খাওয়া রোধে করণীয়

62

বেশিরভাগ খামারি অভিযোগ করেন- ডিমপাড়া মুরগি ডিম খেয়ে ফেলছে। বিশেষ করে ডিমপাড়া লেয়ার মুরগির একটি মারাত্মক বদঅভ্যাস হলো নিজের ডিম নিজে খাওয়া। ডিমপাড়া মুরগির ডিম খাওয়া রোধে করণীয়।

যেসব কারণ আছে ডিম খাওয়ার পেছনে-

দীর্ঘক্ষণ ডিম খাঁচায় রাখা।
যদি কোনো কারণে একবার ডিম ভেঙে যায় এবং সেই ডিম যদি মুরগি খেয়ে স্বাদ পায় তাহলে পরে সে নিজের ভালো ডিম খেতে অভ্যস্ত হয়ে যায়।
ডিমের খোলস যদি খুব পাতলা হয়। রক্ত বা ভেজা ভেজা অবস্থার উপস্থিতি লক্ষ করা যায়।
মুরগির খাবারে যদি প্রোটিনের অভাব হয়।

ডিমপাড়া মুরগির ডিম খাওয়া রোধে করণীয়:

১. মুরগিকে পরিমিত সব উপাদান দেয়া প্রয়োজন,
২. যত দ্রুত সম্ভব মুরগির ডিম অন্য জায়গায় সরিয়ে নিতে হবে,
৩. মুরগির ঠোঁট কেটে দিতে হবে।
৪. মুরগির খাবারে অতিরিক্ত ক্যালসিয়ামের সরবরাহ বাড়াতে হবে। ক্যালসিয়াম ডিমের সেল গঠনে বিশেষ ভূমিকা রাখে।
৫. মুরগির ডিম পাড়ার জায়গা তুলনামূলক ঢালু করে রাখতে হবে। এতে ডিম পাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা নিচে চলে আসে।
৬. ডিম পাড়া স্থানে তুলনামূলক অন্ধকার হলেও এ অভ্যাসের প্রকোপ কমে।
৭. ডিম সংগ্রহের বিরতি কমাতে হবে।

ডিমপাড়া মুরগির ডিম খাওয়া রোধে করণীয় লেখাটি কৃষি তথ্য সার্ভিস থেকে নেওয়া হয়েছে।

মুরগির পায়খানা দেখে রোগ নির্ণয় পদ্ধতি

মুরগির বিভিন্ন রোগ হয়ে থাকে। ব্যকটেরিয়া, ছত্রাক, মাইকোপ্লাজমাসহ অদৃশ্য অণুজীবের সংক্রমণে মারা হাজার হাজার মুরগি। অণুজীবের আক্রমণে মুরগির পায়খানার পরিবর্তন দেখা দেয়। আসুন জেনে নিই মুরগির পায়খানা দেখে রোগ নির্ণয় পদ্ধতি।

চুনা বা সাদা পায়খানা

১।রাণীক্ষীত।
২।আই বি ডি।
৩।গাউট।
৪।কলেরা।
৫।পোলোরাম ডিজিজ।
৬।কিডনিতে সমস্যা।

চুনা বা সাদা পায়খানার সাথে পেষ্ট লাইক সাদা :
৭।আই বি এইচ।
৮।ই কলাই।
৯।পোলোরাম ডিজিজ।

হলুদ পায়খানা
১।পোলোরাম ডিজিজ।
২।টাইফয়েড।
৩।কলেরা।

কমলা পায়খানা
১।নেক্রোটিক এন্টারাইটিস।

সবুজ পায়খানা:
১। এ আই।
২।এন ডি।
৩।সালমোনেলোসিস।
৪।কলেরা।(খাবার কম খেলে)
৫।ই কলাই।
৬।মোইকোটক্সিন।

সবুজাভ হলুদ:
১।।ই কলাই। -পোটোজোয়া।
২।টাইফয়েড।
৩।এন ভি।
৪।ক্লেমাইভিওসিস।

রক্ত
১।আমশয়।

খাবার দানা যুক্ত।
১।ইনডাইজেশন।

মুরগির পায়খানা দেখে রোগ নির্ণয় পদ্ধতি শিরোনামে সংবাদেও তথ্য নাফিজ পোল্ট্রি ফার্ম থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

ফার্মসএন্ডফার্মার/১৫ফেব্রুয়ারি২০২১