ফসলে পোকার আক্রমণ ঠেকাতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ পদ্ধতি

12

দমনযোগ্য রোগ: পাতা কুকঁড়ানো রোগ, হলদে মোজাইক রোগ, পাউডারী মিলডিউ, ধানের-ব্লাষ্ট, বাদামী দাগ রোগ, খোল পোড়া, বাকানী, পাতা লালচে রেখা রোগ ইত্যাদি।

পোকার আক্রমণ ঠেকাতে আগাম ব্যবস্থা

বীজ শোধনঃ
ফসলের অধিকাংশ রোগ বংশগত জীবাণুর মাধ্যমে ছড়ায়। এর থেকে পরিত্রানের কার্যকর উপায় হলো বীজ শোধন করা । তাছাড়া, ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগ দমনে তেমন কোন কার্যকর ঔষধ না থাকায় বীজ শোধনই একমাত্র উপায়। এটি দুই উপায়ে করা যায়ঃ টাকা দিয়ে এবং টাকা ছাড়া।

টাকা দিয়েঃ ভিটাভেক্স/প্রোভেক্স/নোয়িন/ব্যভিষ্টিন ইত্যাদির যেকোন একটির ৩ গ্রাম প্রতি কেজি ধান/গম বীজের সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে সরাসরি বীজ বপন বা বীজ অঙ্কুরিত করে বপন করতে হবে।

টাকা ছাড়াঃ ২০০টি বড় জামপাতা ভালোভাবে মসলার মত পাটা-পুতায় পিষতে হবে। একটি বালতিতে ১০ লিটার পানি নিয়ে এর মধ্যে জামপাতার রস ছেঁকে মিশাতে হবে। এই রস+পানিতে ৮ কেজি পরিমাণ পুষ্ট ধান/গম বীজ ঢেলে ৩০ মিনিট সময় পর্যšত রাখতে হবে। এরপর ফ্রেশ পানিতে বীজগুলো ১/২ বার ধুয়ে নিতে হবে।

১ লিটার পানিতে ৩০ গ্রাম বোরিক এসিড মিশিয়ে তাতে আলু বীজ ১৫ মিনিট ডুবিয়ে রাখলে শোধন হয় । অথবা, টেক্টো ২ গ্রাম হারে প্রতি কেজি আলুর সাথে মিশাতে হবে।