গুণগত মান অক্ষুণ্ণ রেখে ‘একুয়া ফিশ ফিড ফর্মূলেশন’ উৎপাদন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

175

ফিডের গুনগত মান অক্ষুণ্ণ রেখে বর্তমান প্রেক্ষাপটে কীভাবে সর্বোচ্চ মানের ‘একুয়া ফিশ ফিড ফর্মূলেশন’ উৎপাদন করা যায় এ বিষয়ের উপর ‘ডাইজাসটিভ এন্ড মেটাবলিক ইনহেন্সমেন্ট: আনলক দ্য ফুল পটেনশিয়াল অফ ইউর ফিশ ফিড’ শীর্ষক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৩০ জুলাই) রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে এ কর্মশালাটি যৌথভাবে আয়োজন করে বিশ্বখ্যাত এনিমেল নিউট্রিশন কোম্পানি অ্যাডিসিও অ্যাকুয়াকালচার বিজনেস ইউনিট এবং বাংলাদেশে তাদের একমাত্র পরিবেশক ক্যাটাপল বায়োসায়েন্স লি:।

এসময় একুয়া নিউট্রিশনিস্টদের ফিডের মান অক্ষুণ্ণ রেখে বিকল্প উপায়ে ফিশ ফিড ফর্মূলেশনের দিকে জোর দিতে এডিসিও এর একুয়া বিশেষজ্ঞরা তাদের বক্তব্য গুরুত্ব সহকারে তুলে ধরলেন।

সেমিনারে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে স্পেনের অ্যাডিসিও অ্যাকুয়াকালচার বিজনেস ইউনিটের পরিচালক ডঃ পিটার কাটিউ ‘গ্লোবাল আউটলুক অন একুয়া ফিড মার্কেটস এন্ড অলটারনেটিভ ইনগ্রিডিয়েন্স ফর ফিউচার’ শীর্ষক বক্তব্যে বলেন, সমগ্র বিশ্বে তারা একোয়াকালচার বিজনেসকে টেকসই করার লক্ষ্যে ফলিত গবেষণা করে যাচ্ছেন। তাদের এই কার্যক্রমে যুক্ত হয়েছেন একুয়া সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী-গবেষক, নির্বাচিত কাস্টমার যাদের সাথে এ কাজ সফলভাবে করে চলেছেন তারা। তাদের এই সার্ভিস মডেল গুলি সফলভাবে মৎস্য খামারি এবং একুয়া ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচালনা করছেন। তারা সবসময় একুয়াকালচারের ইনোভেটিভ প্রযুক্তি গুলি উদ্ভাবনে সব সময় গবেষণা এবং উন্নয়নকে প্রাধান্য দিয়ে যাচ্ছেন।

এরপর সেমিনারে বেলজিয়ামের অ্যাডিসিও এর নিউট্রিশন অ্যাকুয়াকালচারের গ্লোবাল প্রোডাক্ট ম্যানেজার দেহাসক মারলিন-‘অ্যাডিসিও গ্লোবাল লিডার ইন লাইসো-ফসফোলিপিড বেজড সলুউশনস ফর এগ্রিকালচার বিষয়ে আলোকপাত করেন। ফিশ ফিডের গুনগত মান অক্ষুণ্ণ রেখে বর্তমান প্রেক্ষাপটে কীভাবে সর্বোচ্চ মানের একোয়া ফিড উৎপাদন করা যায় তার উপর একটি চমৎকার মডেল উপস্থাপন করেন।

তিনি এসময় বলেন, বাংলাদেশের এনিম্যাল পুষ্টিবিদগণ যথেষ্ট দক্ষ এবং প্রজ্ঞাবান। তারা এই মডেলটি অনুসরণ করে নিঃসন্দেহে একটি উৎকৃষ্টমানের ফিশ ফিড উৎপাদনে ভূমিকা রাখতে পারে বলে মনে করেন তিনি।

ফিলিপাইনের অ্যাডিসিও এর এপিএসি রিজিওন্যাল টেকনিক্যাল ম্যানেজার মার্টিন গুয়েরিন- চিংড়ি, কার্প, তেলাপিয়াসহ বিভিন্ন ক্যাট চিংড়ি/ মৎস্য খাদ্য উৎপাদনে বিশ্বব্যাপী কাঁচামালের ঊর্ধ্বগতির কারণে ফিড ফর্মুলেশনের ক্ষেত্রে নিউট্রিশনিষ্টদের নতুন করে ভাবতে হবে। অ্যাডিসিও -এর একুয়া বিজনেস ইউনিট-এর সার্ভিস ও সলিউশনগুলি ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড সহ অন্যান্য দেশে কিভাবে কাজ করছে সেটি প্রেজেন্টশনের মাধ্যমে তুলে ধরেন।

এর আগে কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ভারতের অ্যাডিসিও অ্যাকুয়াকালচার আইএসসি এর রিজিওন্যাল ম্যানেজার ধনুঞ্জয়া গৌড়। তিনি উপস্থিত অতিথিবৃন্দকে আলোচকদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন।

ক্যাটাপল বায়োসায়েন্স লিমিটেড এর পরিচালক সনাতন ঘোষ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, মাছের খাদ্যের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হলে খামারী পর্যায়ে সচেতনতা তৈরি করতে হবে এবং গবেষক, ফিডমিলার এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। এতে উদ্যোক্তার যদি তাদের স্বস্ব ক্ষেত্রে প্রয়োগ করেন তবেই এ কর্মশালাটি স্বার্থক হবে বলে মনে করেন তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ক্যাটাপল বায়োসায়েন্স লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর সুবিনয় কুমার সাহা, ডিরেক্টর রাজীব সাহা। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন সারা দেশ থেকে আগত একুয়া সেক্টরের পুষ্টিবিদ, বিজ্ঞানী, বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণসহ প্রায় ৭৫ জন অতিথি।

ফার্মসএন্ডফার্মার/৩১জুলাই ২০২২