বারবার মুরগির রোগ হলে তার চিকিৎসা করবেন যেভাবে

28

বারবার গাম্বোরু হচ্ছে? সমাধান কি.

১।বিভিন্ন বয়সের মুরগি একসাথে পালা যাবে না (একই সেডে বা ২৫ফিটের মধ্যে অন্য কোন সেড করা যাবে না,তবে একই বয়সের হলে সমস্যা নাই)

২।ফ্লোর টা সম্বব হলে পাকা করতে হবে,কাচা হলে উপর থেকে১/৪ ইঞ্চি মাটি তুলে ফেলে দিতে হবে।

৩।খাবার ও পানির পাত্র পরিস্কার করে রোদে শুকাতে হবে,পর্দা,ওয়াল,বাল্ব,ব্রুডার পরিস্কার করতে হবে।হোয়াইট ওয়াশ করতে হবে।

পরিস্কারের নিয়ম গুলো মানতে হবে

৪।সম্বব হলে৫০০ ফিটের মধ্যে ফার্ম থাকলে এক সাথে মুরগি তুলতে হবে এবং একই নিয়মে সব করতে হবে ।প্রয়োজনে পাশের খামারীর সাথে মিলে করবেন কারণ আমাদের দেশের ফার্ম গুলো কাছাআছি অথচ মালিক আলাদা।মিলিতভাবে সব ভ্যাক্সিন এক নিয়মে করতে হবে।

৫.৮দিনে আই বি ডি এক্সট্রিম ভ্যাক্সিন খাওয়াতে হবে.৭দিন পর ১৫দিনে আবার দিতে হবে।

৬।লিটার ভাল রাখতে হবে,১ম ১০-১৫দিন তূষ দিতে হবে।

৭।পর্দা সিস্টেম ঠিক করতে হবে,পর্দা নিচ থেকে উপরে তুলার সিস্টেম করতে হবে।

ভিতরে গ্যাস করা যাবে না।

৮।ভাল কোম্পানীর বাচ্চা ও খাবার দিতে হবে।

৯।ব্রুডিং টা ভাল করতে হবে।

১০।ফার্ম টির অবস্থান,উচ্চতা,লোকেশন ঠিক থাকতে হবে।

১১.২-৩ মাস গ্যাপ দিয়ে বাচ্চা তুলতে হবে,পরের ব্যাচ গুলো ১৫দিন গ্যাপ দিয়ে তোলা যাবে(লেয়ার হলে ২-৩ মাস গ্যাপ দিয়ে তুলতে হবে)।

১২।আপনি যদি উপরের সিস্টেম অনুযায়ী চালাতে পারেন তাহলে ভাল