বৃক্ষ রোপনের নিয়মাবলি

144

গাছকে বলা হয় অক্সিজেনের ফ্যাক্টরি। মানুষ, গাছ, প্রাণিকুল সব মিলে একটি বায়বীয় গ্যাসীয় সম্পর্ক বিদ্যমান রয়েছে, যার মাধ্যমে একে অপরের উপকারার্থে নিবেদিত। কাজেই পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। আর সে বৃক্ষরোপণের সবচেয়ে উপযুক্ত সময় হল এ বর্ষাকাল। যেকোনো ফাকা জায়গাতেই আসলে গাছ লাগানো যায়।

নিম্নে কয়েকটি জাতের চারা রোপণ বিষয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলো-

(১) আমঃ চারা/কলম রোপণের উপযুক্ত সময়: জ্যৈষ্ঠ-আষাঢ় মাস। রোপণের দূরত্ব: ৮-১০ মিটার। গর্তের আকার: চওড়া ১ মিটার, গভীরতা ১ মিটার। প্রতি গর্তে সারের পরিমাণ: জৈব সার ১৮-২২ কেজি, ইউরিয়া ১০০-২০০ গ্রাম, টিএসপি ৪৫০-৫৫০ গ্রাম, এমপি ২০০-৩০০ গ্রাম, জিংক সালফেট ৪০-৬০ গ্রাম।

(২) কাঁঠালঃ চারা রোপণের উপযুক্ত সময়: মধ্য জ্যৈষ্ঠ- মধ্য শ্রাবণ। রোপণের দূরত্ব: ১০-১২ মিটার। গর্ত: ১ মিটার চওড়া এবং ১ মিটার গভীরতা। সার ব্যাবস্থাপনা: গর্ত প্রতি ২৫-৩৫ কেজি পঁচা গোবর বা আবর্জনা পঁচা জৈব সার, টিএসপি ১৯০-২১০ গ্রাম, এমপি ১৯০-২১০ গ্রাম।

(৩) লিচুঃ রোপণের সময়: জ্যৈষ্ঠ-আষাঢ়। রোপণের দূরত্ব: ৮-১০ মিটার। গর্ত ১ মিটার চওড়া ও ১ মিটার গভীর। সার ব্যাবস্থাপনা: প্রতি গর্তে জৈব সার ২০-২৫ কেজি, টিএসপি ৬০০-৭০০ গ্রাম, এমপি ৩৫০-৪৫০ গ্রাম, জিপসাম ২০০-৩০০ গ্রাম, জিংক সালফেট ৪০-৬০ গ্রাম প্রয়োগ করতে হবে।

(৪) পেয়ারা: রোপণের সময়: মধ্য জ্যৈষ্ঠ থেকে শ্রাবণ। দূরত্ব: ৪ মিটার, গর্ত: ৬০ সে:মি: চওড়া ও ৬০ সে:মি: গভীর। সার প্রয়োগ প্রতি গর্তে: জৈব সার বা গোবর ১৫-২০ কেজি, পঁচা খৈল ১-২ কেজি, টিএসপি ১৫০-২০০ গ্রাম, এমপি ৭৫-১০০ গ্রাম।

(৫) কুলঃ মধ্য মাঘ থেকে মধ্য চৈত্র এবং মধ্য শ্রাবণ থেকে মধ্য ভাদ্র; দূরত্ব ৬-৭ মিটার, গর্ত চওড়া ১ মিটার গভীরতা ১ মিটার। গর্ত প্রতি সার প্রয়োগ: জৈব সার ২০-২৫ কেজি, টিএসপি ২০০-২৫০ গ্রাম, এমপি ২৫০ গ্রাম।

(৬) জামঃ রোপণের সময়: জ্যৈষ্ঠ-আষাঢ়। রোপণের দূরত্ব: ১০-১২ মিটার, গর্ত: ৯০ সে:মি: চওড়া ও ৯০ সে:মি: গভীর। গর্ত প্রতি জৈব সার ২০ কেজি।

(৭) নারিকেলঃ বীজ থেকে নারিকেলের চারা পাওয়া যায়। যে গাছের বয়স বিশ বছরেরে ঊর্ধ্বে, বছরে ৮০-১০০ টি ফল দেয়, গাছে ৩০-৪০ টি পাতা থাকে, আগাম ফুল আসে, সুস্থ্-সবল এমন মাতৃ গাছ হতে বীজ সংগ্রহ করা উচিৎ। চারা রোপণের সময়: জ্যৈষ্ঠ-শ্রাবণ। রোপণের দূরত্ব: ৮ মিটার, গর্ত চওড়া ১ মিটার ও গভীরতা: ১ মিটার। সার প্রয়োগ: টিএসপি ২৫০ গ্রাম, এমপি ৪০০ গ্রাম, গোবর সার ১০ কেজি।

(৮) আমলকিঃ রোপণের সময়: বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠ। বর্ষার শেষে ভাদ্র-আশ্বিন মাসেও রোপণ করা যায়। রোপণের দূরত্ব: ৮ মিটার, গর্ত: ১ মিটার চওড়া ও ১ মিটার গভীর। সার প্রয়োগ: জৈব সার ১৫-২০ কেজি, টিএসপি ৫০০ গ্রাম, এমপি ২৫০ গ্রাম।

অন্যান্য জাতের চারার ক্ষেত্রে তাদের নির্ধারিত হারে সার প্রয়োগ করতে হবে। তবে, উপরে উল্লিখিত চারা রোপণের সাধারণ নিয়ম মেনে চলতে হবে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায়, নিজেদের প্রয়োজনে-

ফার্মসএন্ডফার্মার/১০আগস্ট২০