ভার্মি কম্পোষ্ট সার উৎপাদন করে স্বাবলম্বী মেহেরপুরের তিন যুবক

830

[su_slider source=”media: 947,948,949,950,951″ target=”blank” width=”400″ height=”200″ title=”no” pages=”no” mousewheel=”no” class=”post_slider”]

ফার্মস এন্ড ফার্মার ২৪.কম ডেস্ক: বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক জেলা মেহেরপুর। ১৯৭১ সালের ১৭ ই এপ্রিল মেহেরপুরের মুজিবনগরে বৈদ্যনাথতলায় প্রথম সরকার গঠন করা হয় এবং স্বাধীনতা সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ স্থান হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই জেলার অন্যতম উপজেলা গাংনী। ভারত সীমানা বেষ্টিত এই গাংনী উপজেলার সবুজ মাঠ বিস্তৃত গ্রাম হুগলবাড়িয়া, যা গাংনী থেকে ১০-১২ কিঃমিঃ দূরে মেহেরপুুর-কুষ্টিয়া সংযোগ সড়কে অবস্থিত। এই হুগলবাড়িয়া গ্রামে ঢুকতেই প্রথমে চোখে পড়বে রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ এর সাইনবোর্ড। যে সাইনবোর্ডের গায়ে লেখা আছে রাখাল স্বরনী। এই রাখাল স্বরনী দিয়ে ১ কি:মি: এগোলেই দেখা যাবে ৮ একর জমির উপর স্থাপিত রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ -এর বিশাল প্রকল্প। তিন বন্ধু মোঃ লেলিন আক্কাস (চেয়ারম্যান), মোঃ মহির উদ্দিন রাখাল (ব্যবস্থাপনা পরিচালক) ও মোঃ সুমন আলী (পরিচালক) ২০১১ সালে সামান্য পরিমান জমির উপর মাত্র দুইটি গরু নিয়ে রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ -এর যাত্রা শুরু করে। ২০১৫ সাল পর্যন্ত তাদের গরুর সংখ্যা বেড়ে দাড়ায় ৪০টি। গরুর গোবর কাজে লাগিয়ে অর্গানিক উপায়ে সবজি উৎপাদন করে মানুষকে কিভাবে বিষ মুক্ত খাবার খাওয়ানো যায় এই ধারনা থেকেই ২০১৩ সালে স্বল্প পরিসরে শুরু করে ভার্মি কম্পোষ্ট সার (কেঁচো সার) উৎপাদনের কার্যক্রম। বর্তমানে তাদের কম্পোষ্ট সারের প্রকল্পে ১৪ ফুট লম্বা ও ৪ ফুট চওড়া ৬৪ টি শেড রয়েছে যেখানে ৬ জন লোকের অক্লান্ত পরিশ্রমে প্রতিমাসে ৫০ কেজি ওজনের বস্তার ৪৫০ বস্তা সার উৎপাদন হচ্ছে। কিন্তু এখানকার স্থানীয় পর্যায়ে এই সারের চাহিদা প্রায় ১০০০ বস্তা। ভার্মি কম্পোষ্ট সার (কেঁচো সার) উৎপাদনের স্বীকৃতি স্বরুপ রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ মেহেরপুর কৃষি প্রযুক্তি মেলা ২০১৬- তে ৩০ টি স্টলের মধ্যে ১ম পুরস্কার লাভ করে। এছাড়া রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ বাংলাদেশের আরও কয়েকটি জেলায় ভার্মি কম্পোষ্ট সার তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাঁচামাল সরবরাহ করেন। এগুলো হল মেহেরপুরের কোদালকাঠি, মোহাম্মদপুর, গাড়াডোপ, বামুন্দী, ময়মনসিংহের বিগ বেঙ্গল ফার্ম, মাদারীপুর, সিলেট এবং কিছু প্রতিষ্ঠান যেমন-জাগরনী চক্র ফাউন্ডেশন, আর আর এফ, ওয়েব ফাউন্ডেশন, বিএডিসি ফার্ম প্রভৃতি।

ফার্মস এন্ড ফার্মার ২৪.কম এর প্রধান সম্পাদক এম.শফিকুল ইসলাম ও সম্পাদক নিমাই চন্দ্র কর(অজয়) এর সাথে সাক্ষাৎকালে রাখাল এগ্রো প্রাঃ লিঃ-এর চেয়ারম্যান মোঃ লেলিন আক্কাস বলেন, পরিবার এবং এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় আমরা নিজ উদ্দ্যেগে এই প্রতিষ্ঠানটি স্থাপন করেছি। এর পাশাপাশি আমরা গরুর চুনা দিয়ে লিকুইড তৈরি করব যার মধ্যে রয়েছে ৮২% নাইট্রোজেন(পরিক্ষিত)। তাই সরকার এবং বাণিজ্যিক ব্যাংক গুলো যদি আমাদের পাশে এসে দাঁড়ায় তাহলে আমরা বেকার যুবকদের কাজের সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে পারব এবং কৃষকদের মধ্যে স্বল্পমূল্যে সার বিতরন করে রাসায়নিক সার ও বিষ মুক্ত ফসল উৎপাদনে সক্ষম হব।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ মহির উদ্দিন রাখাল বলেন, দেশের কৃষি এবং কৃষকদের নিয়ে কাজ করার জন্য এই প্রতিষ্ঠানটি স্থাপন করেছি। আমাদের মূল লক্ষ্য নিজস্ব ফার্ম থেকে মান সম্মত পন্য উৎপাদন করে দেশের মানুষকে খাওয়ানো , বেকারত্ব দূর করা। এরই ধারাবাহিকতায় শহরকেন্দ্রিক নিজস্ব শপিংমল স্থাপন করা এবং বায়োগ্যাস প্লান্ট দ্রুত বাস্তবায়ন করা।
পরিচালক মোঃ সুমন আলী বলেন, মাটির উর্বরতা রক্ষা, উৎপাদন বৃদ্ধি ও মাটির যৌবন ফিরিয়ে আনতে এবং সুস্থ সবল জাতি গঠনে ভার্মি কম্পোষ্ট সারের বিকল্প নাই। তাই আমরা চাই রাখাল এগ্রো প্রাঃ লিঃ কে আরও সম্প্রসারন করতে। গাংনী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ রইচ উদ্দিন বলেন, ভার্মি কম্পোষ্ট সার কৃষি জমির জন্য খুবই উপযোগী। কৃষকরা জমির উর্বরতা শক্তি ধরে রাখতে যাতে এই সার ব্যবহার করে তার জন্য পরামর্শ মূলক বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহন করবো এবং রাখাল এগ্রো (প্রাঃ) লিঃ যাতে এই সার সারাদেশে বাজারজাত করতে পারে ও কৃষকের দোর গোড়ায় পৌছে দিতে পারে সেজন্য আমাদের চেষ্টার কোনো ত্রুটি থাকবে না।