সাতক্ষীরায় বড়শিতে ধরা পড়লো ১৫ কেজির বিশাল চিতল

56

সাতক্ষীরায় শত বছরের পুরাতন দিঘীতে বড়শি দিয়ে ১৫ কেজি ওজনের এক বিশাল চিতল মাছ শিকার করা হয়েছে। মাছটি শিকার করেন শৌখিন মৎস্য শিকারী সাইদুর রহমান শাহিন। শুক্রবার (ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সাতক্ষীরা শহরের পৌর দিঘী থেকে মাছটি শিকার করা হয়।

শিকারী সাইদুর রহমান পেশায় একজন ব্যবসায়ী। এর আগে গত শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) তিনি একই দিঘী থেকে ১২ কেজি ওজনের একটি চিতল মাছ শিকার করেছিলেন।

পৌর কর্তৃপক্ষ জানায়, ঐতিহ্যবাহী এই দিঘীটি জমিদার প্রাণনাথ রায়ের আমলে খনন করা। বর্তমানে এটি সাতক্ষীরা পৌরসভার দায়িত্বে রয়েছে। এই দিঘীতে মাছ ছাড়া হলেও কখনো জাল দিয়ে মাছ শিকার করা হয় না। প্রতি বছর শীতের শুরুতে আয়োজন করা হয় বড়শিতে মাছ শিকার প্রতিযোগিতা। বছরে একবারই টিকিটের বিনিময়ে এক মাসের চার শুক্রবার মাছ ধরার সুযোগ পান শৌখিন মৎস্য শিকারিরা। তবে নানা জটিলতায় গত চার বছর এই প্রতিযোগিতা বন্ধ ছিল।

এ বছর ১৭ নভেম্বর থেকে আবারও ঐতিহ্যবাহী এ দিঘীতে বসেছে মৎস্য শিকারীদের মিলন মেলা। দীর্ঘ দিন মাছ না ধরার কারনে এবার প্রতি সপ্তাহে অনেকের বড়শিতে ধরা পড়ছে বড় আকৃতির মাছ। আর মাছ দেখতে ভীড় জমাচ্ছেন উৎসুক জনতা।

স্থানীয় বাসিন্দা শেখ হাফিজুর রহমান জানান, স্বাধীনতার আগে থেকেই দেখে আসছেন এই মিলন মেলা। জেলার বিভিন্ন প্রান্তের মাছ শিকারীরা এই উৎসবে অংশ নেয়। কে কার চেয়ে বেশি ও বড় আকারের মাছ শিকার করবেন সেটি নিয়ে চলে প্রতিযোগিতা। প্রতি বছর এই আয়োজন করা হলেও কয়েক বছর সেটি বন্ধ ছিল।

পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র কাজী ফিরোজ হাসান জানান, এবার ১২ হাজার টাকার একটি টিকিটের বিনিময়ে চারটি ছিপ দিয়ে চার সপ্তাহের প্রতি শুক্রবার মাছ ধরার সুযোগ পাচ্ছেন মৎস্য শিকারীরা। এ বছর ৬৫ জন সৌখিন শিকারী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন। এ আয়োজন থেকে পৌরসভার আয় হয়েছে সাত লাখ ৮০ হাজার টাকা।