সোনালী মুরগীর খাদ্য ও পুষ্টি

99

আমরা অনেকেই মনে করি সোনালি মুরগিকেও ব্রয়লার মুরগির মত সব সময় খাবার দেয়া দরকার। কিন্তু এটা একটা ভুল ধারণা। মনে রাখা দরকার ব্রয়লার মুরগির খাদ্য রূপান্তরের হার এবং সোনালি মুরগির খাদ্য রূপান্তরের হার এক নয়। ব্রয়লার মুরগি যত খাবে তত ওজন হবে, অন্যদিকে সোনালি মুরগিতে খাদ্যের অনেকটাই কাজে আসবে না। এজন্যই সোনালি মুরগিকে Add libidum(যত খাবে তত/ সারাদিন) খাবার দেয়া যাবে না।

খাবার দেওয়ার পদ্ধতিঃ
সাধারণত সোনালি মুরগির ক্ষেত্রে প্রতি ১০০০ মুরগিতে ৪০ ব্যাগ (২০০ কেজি) হিসেবে সোনালি খাদ্য হিসাব করে ৮০০ গ্রাম গড় ওজন হিসাব করা হয়। কিন্তু “সোনালি খাদ্যে” কখনো কখনও ২ ব্যাগ বা ৩ ব্যাগ বেশি লাগতে পারে। খাবার খুব ভাল হলে ২ ব্যাগ বা ৩ ব্যাগ কম লাগতে পারে। যদি সোনালি মুরগিকে ব্রয়লার খাদ্য খাওয়ানো হয় তবে ১০০০ মুরগিতে সর্বোচ্চ ৩৪ থেকে ৩৫ ব্যাগ খাদ্যে ৮০০ গ্রাম গড় ওজন হিসাব করা হয়। এক্ষেত্রেও আগের মতই ২ থেকে ৩ ব্যাগের যোগ বা বিয়োগ ধরে নেওয়া যেতে পারে।

সোনালি মুরগির খাদ্য রূপান্তরের হারঃ
সোনালি খাদ্য: ২.২ থেকে ২.৫ (এখানে ২.৬৩ পর্যন্ত আসলেও তা গ্রহণযোগ্য হবে) ব্রয়লার খাদ্য: ১.৮১ থেকে ২.১৮ (এখানে ২.২৬ পর্যন্ত হলেও তা গ্রহণযোগ্য হবে) তবে মনে রাখতে হবে ব্রয়লার খাদ্যে প্রোটিন বেশি থাকার কারণে মুরগিতে আমাশয় রোগ এবং সাদা আমাশয় জনিত সমস্যা বেশি দেখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে ব্রয়লার এবং সোনালি খাদ্য একত্রে মিশিয়ে যথাক্রমে ৩৫% এবং ৬৫% হারে খাওয়ানো যেতে পারে। দিনে ৩ বার খাবার দিতে হবে। বিশেষ করে মনে রাখতে হবে যেন, সকালে সর্বোচ্চ ৪ ঘন্টার মধ্যে খাদ্য খাওয়া শেষ হয়ে যায়। দুপুরে যেন সর্বোচ্চ ৩ ঘণ্টার মধ্যে খাদ্য শেষ হয়। রাতে সর্বোচ্চ ৫ ঘণ্টা যেন খাদ্য খায়। প্রয়োজনে মুরগির ক্রপ(খাদ্য থলি) পরীক্ষা করে খাদ্য দিতে হবে। যদি খাদ্য থলি ভর্তি থাকে তবে খাদ্য দেয়া কোন দরকার নাই। কারণ মনে রাখবেন, সোনালি মুরগিকে আপনি যতই খেতে দিবেন তারা ততই খাবে। ৩য় সপ্তাহ বয়সে পরে মুরগিকে ২০থেকে ২২ গ্রাম/ মুরগি হিসেবে খাদ্য এবং পরবর্তী প্রতি সপ্তাহে ৪-৬ গ্রাম/মুরগি হারে খাদ্য বৃদ্ধি করে দিতে হবে। দিনের মোট খাদ্যের পরিমাণকে তিন ভাগে ভাগ করে ৪০%(সকাল)+২০%(দুপুর)+৪০%(রাত) খাদ্য দিবেন। এ হিসেবে খাদ্য খাওয়ালেই আশা করা যায় আপনাদের খাদ্য অপচয় বন্ধ হবে।

ফার্মসএন্ডফার্মার/২৬নভেম্বর২০২০