হিটস্ট্রোকে মারা যাচ্ছে মুরগি

38

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি: প্রচণ্ড রোদ ও মাত্রাতিরিক্ত তাপ সহ্য করতে না পেরে হিটস্ট্রোকে মারা যাচ্ছে হাজার হাজার মুরগি। রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় গত এক সপ্তাহে অন্তত ২ হাজার মুরগি মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গত এক সপ্তাহে উপজেলার বিভিন্ন পোলট্রি খামারে এ ঘটনা ঘটে। বুধবার (৫ মে) উপজেলার বিভিন্ন খামার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় খামারের মালিকেরা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কাছে এ বিষয়ে কোনো সঠিক হিসাব পাওয়া যায়নি।

চারঘাট উপজেলার মিয়াপুর গ্রামের খামারি ওবাইদুর রহমান রিগেন জানান, তার দুইটি ব্রয়লার মুরগির খামার রয়েছে। তাতে ৭ হাজার মুরগি ছিল। প্রচণ্ড গরমে গত ৭ দিনে প্রায় ১ হাজার ২০০ টি মুরগি মারা গেছে। এদিকে, তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে বিরুপ আবহাওয়ার কারনে লোডশেডিং হচ্ছে। সব মিলিয়ে খামার নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় আছেন তিনি।

উপজেলার চকগোচর গ্রামের পোল্ট্রি খামারের মালিক হাবিবুর রহমান বলেন, এ গরমে তার কমপক্ষে ১৫০ টি ব্রয়লার মুরগি মারা গেছে। এরকম গরম থাকলে আরও মুরগি মারা যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

খামারিরা জানিয়েছেন, প্রাথমিক চিকিৎসা ও খামারে পানি ছিঁটানোসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েও কাজ হচ্ছে না। তবে অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, এ বিষয়ে খামারিরা তাঁদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেননি।

খামারিরা আরও বলেন, গরমে এ পর্যন্ত বিভিন্ন খামারের মুরগী মারা যাওয়া চলমান রয়েছে। মুরগিগুলো প্রথমে প্রচণ্ড গরমে দুর্বল হয়ে যায়। চোখ কালো হয়ে একপর্যায়ে ঘাড় কাত হয়ে ছটফট করতে করতে মুরগি মারা যায়।

চারঘাট উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মিজানুর রহমান জানান, উপজেলায় প্রায় ৪৫০ টি মুরগি খামার রয়েছে। তবে গরমে মুরগি মারা যাবার বিষয়ে তার কার্যালয় থেকে এখন পর্যন্ত কেউ পরামর্শ নেয়নি। এজন্য তার কাছে সঠিক পরিসংখ্যান নেই।

তিনি বলেন, গরমের কারণে মুরগির দেহ থেকে তাপ বের করতে পারে না। এতে মুরগির শ্বাসকষ্ট ও হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। এ সময় এসপিরিন ও ভিটামিন-সি যুক্ত কোনো মিশ্রণ দিনের উষ্ণতম সময়ে পানির মাধ্যমে খাওয়ালে ভাল উপকার পাওয়া যায়। এ ছাড়াও খামারিদের মুরগির ফিডে ভিটামিন-সি যুক্ত প্রিমিক্স ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি।

ফার্মসএন্ডফার্মার/ ০৬ মে ২০২১