৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ »
Home / পোল্ট্রি বিষয়ক / ঘুষ না দেয়ায় ৩৫ হাজার ডিম রাস্তায় ফেলে নষ্ট করলো পুলিশ!

ঘুষ না দেয়ায় ৩৫ হাজার ডিম রাস্তায় ফেলে নষ্ট করলো পুলিশ!

ডিম

নাটোরের বড়াইগ্রামে দাবিকৃত ২০ হাজার টাকা ঘুষ না দেওয়ায় পিকআপের রশি কেটে পৌনে তিন লাখ টাকার ডিম রাস্তায় ফেলে নষ্ট করে দিয়েছে বনপাড়া হাইওয়ে থানা পুলিশ। এতে প্রায় সব ডিম ভেঙে নষ্ট হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের আগ্রাণ সুতিরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে ডিমের মালিক বিপ্লব কুমার সাহার পথে বসার উপক্রম হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে একটি পিকআপ (ঢাকা মট্রা ন ১৭-৩৭৮০) ৩৫ হাজার একশ ডিম নিয়ে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ থেকে নাটোরে আসছিল। পথে বড়াইগ্রাম উপজেলার আগ্রাণ সুতিরপাড় এলাকায় পিকআপটি চাকা পাংচার হয়ে গেলে সেটি পাশের ফিডার রোডে নেমে যায়। খবর পেয়ে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে আসে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা পিকআপ উদ্ধারের জন্য রেকার ভাড়াসহ ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে। চালক এতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ সদস্যরা পিকআপে ডিমের খাঁচি বাঁধার রশি চাকু দিয়ে কেটে দেয়। এতে ডিমের খাঁচি রাস্তায় পড়ে অধিকাংশই ভেঙে নষ্ট হয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, স্থানীয় মহিলারা রাস্তায় পড়ে থাকা ভাঙাচোরা ডিম কুড়িয়ে নিচ্ছেন। রাস্তা জুড়ে ভাঙা ডিমের হলুদ কুসুম ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। ট্রাকের চালক-হেলপার ভাঙা ডিম রাখা প্লাষ্টিকের খাঁচিগুলা সংগ্রহ করছেন। রাস্তায় যত্রতত্র কেটে ফেলা রশিগুলা পড়ে রয়েছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় পুকুরের পাহারাদার শহীদুল ইসলাম ও আতাহার আলী জানান, চালক-হেলপার বারবার নিষেধ করা স্বত্বেও পুলিশ পিকআপের রশিগুলা কেটে দিয়েছে। রশি না কাটলে ডিমগুলা নষ্ট হতো না। পুলিশ ডিমসহ পিকআপটি রেকার করে থানায় নিয়ে গেলে এমন কি ক্ষতি হতো।

পিকআপের চালক সিরাজগঞ্জ সদরের মজনু মিয়া জানান, আমার গাড়ির চাকা পাংচার হয়ে ফিডার রাস্তায় নেমে গেলেও কোনো ডিম পড়েনি। পুলিশের দাবিমতো ঘুষ না দেওয়ায় তারা রাগে ডিম বাধার রশিগুলো কেটে দিলে সব ডিম রাস্তায় পড়ে যায়।

ডিমের মালিক সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল গ্রামের মেসার্স প্রীতিমণি এটারপ্রাইজের সত্বাধিকারী বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, আমি চালকের মোবাইল দিয়ে কর্তব্যরত পুলিশ অফিসারের সঙ্গে কথা বলছি এবং রশি না কাটার জন্য হাতপায়ে ধরে অনুরাধ করেছি। তারা আমার কোনো কথাই শোনেনি।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি আলিম হাসান শিকদার বলেন, তিনি একটি মামলার সাক্ষ্য দেওয়ার কারণে ঢাকায় ছিলেন। সন্ধ্যায় ফিরেছেন। তবে তিনি শুনেছেন একটি পিকআপ বিকল হয়ে ফিডার রোডে কাত হয়ে পড়ে ডিম নষ্ট হয়েছে। এর বেশি কিছু এই মুহূর্তে বলতে পারছি না।

ফার্মসঅ্যান্ডফার্মার২৪ডটকম/ মোমিন

আরও পড়ুন...

চাষী

নেত্রকোনায় বিদেশী ফল রাম্বুটান চাষে সাফল্য

বিদেশী ফল রাম্বুটানের চাষ দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। দেশীয় মাটি ও আবহাওয়া উপযোগীতায় ওষুধীগুন …