৩০ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯
Home / পোল্ট্রি বিষয়ক / কেবিসি এগ্রোর ৩ হাজার টন এমবিএম জব্দ ও জরিমান, কেবিসি এ্গ্রোর প্রতিবাদ

কেবিসি এগ্রোর ৩ হাজার টন এমবিএম জব্দ ও জরিমান, কেবিসি এ্গ্রোর প্রতিবাদ

cHuifv

মেয়াদোত্তীর্ণ রাইস ব্র্রান তেল নতুন করে মেয়াদ বসিয়ে বাজারজাত করাসহ ফিস ফিড তৈরিতে আমদানি নিষিদ্ধ এমবিএম ব্যবহার করার অভিযোগে ঢাকার ধামরাইয়ের কেবিসি এগ্রো প্রোডাক্টস প্রাইভেট লিমিটেডকে ৭৫ লাখ টাকা জরিমানা ও ৩ হাজার টন এমবিএম জব্দ করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (৩ আগস্ট) র‌্যাব সদরদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট সরোয়ার আলমের নেতৃত্বে এ অভিযান চালায় র‌্যাব-৪ ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর।

এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রথমআলোসহ বিভিন্ন মিডিয়াতে প্রকাশিত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে কেবিসি এগ্রো প্রোডাক্ট প্রাইভেট লিমিটেডর পরিচালক মো. জাহিদ জুবায়ের এ সংবাদের প্রতিবাদ করে লিখিত বক্তব্যে দেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, ‘আমরা হংকং থেকে শুকুরের মাংস আমদানি করিনি বরং কুষ্টিয়ার মেসার্স কেএনবি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড থেকে ফিসমিল কিনেছি। উক্ত ফিস মিলকে কোনো রকম ল্যাব টেস্ট না করে শুকুরের মাংস ও চর্বি হিসেবে মিডিয়াতে প্রচার করা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে তিনি জানান।

কেবিসি

তিনি আরো জানান, আমাদের সামাজিকভাবে হেয় করার ও ব্যবসায়ীকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্যই আমাদের প্রতিষ্ঠানের নামে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যেহেতু আমরা সয়াবিন তেল উৎপাদন ও বাজারজাত করি, তাই আমাদের গোডাউনে ডিলারদের কাছ থেকে অবিক্রিত মেয়াদোর্ত্তীণ পণ্য নিয়ে এসে রাখা হয়েছিল। উক্ত তেলগুলো দেখে মাননীয় ভ্রাম্যমাণ আদালত জরিমানা ও জব্দ করেন। তাছাড়া অনেক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের প্রতিষ্ঠানকে ভারতীয় মালিকানা বলে উল্লেখ করা হয়েছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমাদের প্রতিষ্ঠানের সাথে ভারতের কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারির কোনো দূরতম সম্পর্কও নাই। তাই আমি দৃঢ়ভাবে বলতে চাই এই সংবাদটি মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমাদের সকল গ্রাহককে মিথ্যা সংবাদে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।

ফার্মসঅ্যান্ডফার্মার২৪ডটকম/মোমিন

আরও পড়ুন...

নড়াইলে ৩ হাজার ৬১০ হেক্টর জমিতে আমন চাষ

নড়াইলে ৩ হাজার ৬১০ হেক্টর জমিতে আমন চাষ

নড়াইলে চলতি মওসুমে জেলার ৩ উপজেলায় ৩ হাজার ৬১০ হেক্টর জমিতে বোনা আমন ধানের চাষ …